Home ধর্মের বাণী ইসলাম বিরোধী বলায় খেপেছেন নুসরাত

ইসলাম বিরোধী বলায় খেপেছেন নুসরাত

55
0
SHARE

হিন্দু ছেলেকে বিয়ে করে হিন্দু নারীর মতো সিঁথি রাঙিয়েছেন সিঁদুরে। পশ্চিমবঙ্গের নব নির্বাচিত মুসলিম সাংসদ তথা টালিউড নায়িকা নুসরাত জাহান এরপর পড়েছেন রোষানলে। স্বধর্মের মানুষ তাকে ইসলাম বিরোধী তকমা দিচ্ছে। আর তা শুনে তেলেবেগুনে জ্বলে উঠেছেন তিনি।

নুসরাত বলছেন, ‘একজন হিন্দুকে বিয়ে করা মানে এই নয় যে আমি আমার মুসলিম সত্তা বিসর্জন দিয়ে দিয়েছি। মুসলিম পরিবারে জন্মেছি। আর সেই আভিজাত্যই বজায় রেখে যাব। কিন্তু অন্য ধর্মকে সম্মান করতে তো দোষের কিছু নেই! কেন ধর্মের দোহাই দিয়ে মানুষে মানুষে ভেদাভেদ সৃষ্টি করা?’

দেওবন্দের ইমাম মুফতি কাসাম এবং মুফতি আসাদ ওয়াসিম নসুরাতকে ‘ইসলাম বিরোধী’ বলেন। তারই প্রতিক্রিয়ায় নুসরাত বলেন, ‘হ্যাঁ, আমি মুসলিম। ধর্মনিরপেক্ষ দেশ ভারতের একজন নাগরিক। ভারতে সব ধর্মের মানুষ এবং সবরকম সংস্কৃতিকে সম্মান করা হয়। কেন ধর্ম এবং ভগবানের দোহাই দিয়ে মানুষের মধ্যে ভেদাভেদ সৃষ্টি করা হবে?’

‘আমার ধর্ম আমাকে আল্লাহর নামে দোহাই দিয়ে মানুষে মানুষে বিভেদ নীতি শেখায়নি। সিঁথিতে সিঁদুর পরা এবং বাংলায় শপথ বাক্য পাঠ করা পুরোপুরি সদিচ্ছায় করেছি। আমার মন যা চাইবে, আমি সেই পথেই চলব। ধর্মের নামে কেউ কোনও বাধা সৃষ্টি করলে, সেদিকে মোটেই কর্ণপাত করব না আমি! নব্য ভারতের অগ্রদূত মহিলাদের মতো নিজেকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য আমি যথেষ্ট শিক্ষিত। তাই আমার জীবনে আমি কী করছি, কী করব পুরোপুরি আমার সিদ্ধান্ত।