Home অর্থ-বাণিজ্য আমিরাতে জনতা ব্যাংকে খেলাপি ঋণ ২১ শতাংশ

আমিরাতে জনতা ব্যাংকে খেলাপি ঋণ ২১ শতাংশ

4
0
SHARE

সংযুক্ত আরব আমিরাতে রাষ্ট্রায়ত্ত জনতা ব্যাংকে ২১ শতাংশ ঋণ খেলাপি অবস্থায় রয়েছে উল্লেখ করে এ নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ আসাদুল ইসলাম।

বুধবার রাতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবিতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি বলেন, আরব আমিরাতের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী একটি ব্যাংকে সর্বোচ্চ ২ দশমিক ৭ শতাংশ পর্যন্ত খেলাপি ঋণ থাকতে পারে। তবে জনতা ব্যাংক সেই গণ্ডি অতিক্রম করে গেছে। আরব আমিরাতস্থ জনতা ব্যাংকের চারটি শাখায় এই খেলাপিদের তালিকায় ১৬১ জন প্রবাসীর নাম রয়েছে।

আসাদুল ইসলাম বলেন, ‘সত্যিকার অর্থে ২১ শতাংশ ঋণ খেলাপির সংবাদে আমরা খুবই অসন্তুষ্ট। জনতা ব্যাংকের ২১ শতাংশ ঋণ খেলাপি বস্তুত সংযুক্ত আরব আমিরাতের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নীতির বিপরীত। আমিরাতে বিভিন্ন বিদেশি ব্যাংকও আছে, তাদের কিন্তু খেলাপি ঋণ খুব কম। প্রবাসীদের মনে রাখা উচিত– ব্যাংকটি দেশের বাইরে। এখানে আমিরাতের আইন অনুযায়ী, নীতিনিয়ম অনুসরণ করে চলতে হবে।’

ঋণগ্রহীতারা দ্রুততম সময়ের মধ্যে নিজেদের ঋণ পরিশোধ না করলে তাদের নাম ব্যাংকের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে বলে এসময় সর্তক করেন এই কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশের জিডিপি সিঙ্গাপুর ও হংকংকে ছাড়িয়ে গেছে। এই অগ্রযাত্রায় অতুলনীয় ভূমিকা রাখছেন প্রবাসীরা। প্রবাসীদের আরও বেশি করে বৈধ চ্যানেলে রেমিট্যান্স পাঠানোর জন্যে চলতি বছরের জুলাই থেকে শতকরা ২ শতাংশ প্রণোদনা দেওয়ার প্রজ্ঞাপন হয়েছে। অচিরেই তা বাস্তবায়ন করা হবে।

আবুধাবি জনতা ব্যাংকের মহাপরিচালক আমিরুল হাসান বলেন, ‘ব্যাংকের যে কোনো শাখার কার্যক্রম নিয়ে প্রবাসীরা সরাসরি অভিযোগ করতে পারবেন। অভিযোগকারী অবশ্যই নিজের মোবাইল নম্বর অভিযোগপত্রে সংযুক্ত করবেন। অভিযোগ তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।