Home জেলা সংবাদ সেন্টমার্টিনে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে আটক ২

সেন্টমার্টিনে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে আটক ২

4
0
SHARE

কক্সবাজারের টেকনাফে সেন্টমার্টিন দ্বীপে একটি আবাসিক হোটেলে এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে দুইজনকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় তাকে আটকে রেখে হত্যার চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী কিশোরী।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় সেন্টমার্টিন দ্বীপের ফ্র্যান্টাসি নামে আবাসিক হোটেলে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় হোটেল থেকে মো. ইমরান ও রবি আলম ওরফে হাসু নামে দুই ব্যাক্তিকে আটক করেছে পুলিশ।
সেন্টমাটিন পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আজমীর ইলাহী বলেন, কিছু লোকজন রাতে একজন কিশোরীকে উদ্ধার করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসেন। বিষয়টি শুনে হোটেল থেকে অভিযুক্ত দুই ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

ওই কিশোরীর অভিযোগ, রাস্তা থেকে আমাকে ভিন্ন কৌশলে ডেকে হোটেলের সীমানা প্রাচীরের ভিতরে ঢুকিয়ে ধর্ষণ করে। ধর্ষণ শেষে আটকে রেখে মুখে কাপড় বেঁধে একটি ড্রামে ঢুকিয়ে হত্যার চেষ্টা করলে আমি চিৎকার করি। এসময় আশপাশের লোকজন জড়ো হয়ে আমাকে উদ্ধার করতে পারলেও অভিযুক্ত ব্যক্তি আমাকে বের করে দিয়ে প্রধান ফটকে তালা লাগিয়ে দেন। তবে স্থানীয় লোকজন আমাকে উদ্ধার করে পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে আসেন।

ভুক্তভোগীর চাচা মোহাম্মদ কাশেম বলেন, দ্বীপের ডেইল পাড়া ফ্যান্টাসি হোটেলের একটি কক্ষে আমার ভাতিজিকে মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে। এসময় তার চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজনকে নিয়ে হোটেল থেকে ভাতিজিকে উদ্ধার করি। এঘটনায় ফ্র্যান্টাসি হোটেলের মালিকের ভাই মো.নাঈম, কর্মচারি মো. ইমরান ও রবি আলম হাসু জড়িত রয়েছে।

সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আহমদ বলেন, স্থানীয় এক কিশোরীকে ফ্যান্টাসি হোটেলের লোকজন ধর্ষণ করেছে, লোকজনের কাছ থেকে শুনে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছি, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে পুলিশ দুজনকে ধরে ফাঁড়িতে নিয়ে আসেন।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মোহাম্মদ রবিউল হাসান বলেন, ঘটনার খবর শুনে সেখানে পুলিশ ও স্থানীয় চেয়ারম্যানকে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।