Home জাতীয় ড্রাইভিং লাইসেন্সে পয়েন্ট পদ্ধতি, ১২ পয়েন্ট খোয়ালেই লাইসেন্স বাতিল

ড্রাইভিং লাইসেন্সে পয়েন্ট পদ্ধতি, ১২ পয়েন্ট খোয়ালেই লাইসেন্স বাতিল

4
0
SHARE

গত ১ নভেম্বর থেকে কার্যকর হয়েছে নতুন সড়ক পরিবহন আইন। এই আইনে ড্রাইভিং লাইসেন্সে পয়েন্ট পদ্ধতির

বিধান রাখা হয়েছে। যেকোনও লাইসেন্সের বিপরীতে ১২ পয়েন্ট বরাদ্দ থাকবে এবং নিয়ম ভাঙলে এই পয়েন্ট কাটা যাবে।
কেউ দোষ করতে করতে ১২ পয়েন্ট খোয়ালে তার লাইসেন্স বাতিল হবে। তবে এ সংক্রান্ত বিধিমালা বা প্রয়োগ পদ্ধতি এখনও ঠিক হয়নি।

পেশাদার ড্রাইভিং লাইসেন্সের ক্ষেত্রে বয়স নির্ধারণ করা হয়েছে ২১ বছর এবং শিক্ষাগত যোগ্যতা- ৮ম শ্রেণি পাস। নতুন এই আইনে চালকের লাইসেন্সের ক্ষেত্রে পয়েন্ট সিস্টেমের কথা বলা হয়েছে। চালকের লাইসেন্সের বিপরীতে মোট ১২ পয়েন্ট বরাদ্দ থাকবে।

লাল বাতি অমান্য করা, গতিসীমা ও ওজনসীমা লঙ্ঘন, বেপরোয়া ও বিপজ্জনকভাবে গাড়ি চালানো, নিষিদ্ধ স্থানে ওভারটেকিং, নেশাগ্রস্ত অবস্থায় চালানো, গাড়ি চালানো অবস্থায় মোবাইল ফোন ব্যবহার কিংবা বিধি দ্বারা নির্ধারিত নিয়ম অমান্য করলে, একে একে এই ১২ পয়েন্ট কাটা যাবে। কোনও চালক ১২ পয়েন্ট খোয়ালে তার লাইসেন্স বাতিল হয়ে যাবে।

তবে এই নিয়ম চালু হবে কবে তা নির্দিষ্ট করে জানাতে পারেনি কর্তৃপক্ষ।

ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মফিজ উদ্দিন আহমেদ গণমাধ্যমকে বলেন, ‘পয়েন্ট সিস্টেম হলে আপনারা জানেন যে ড্রাইভিং লাইন্সেসটা যদি ডিজিটাল হয়, সেখানে যদি একটা বার কোড থাকে, সেটা রিড করার জন্য নির্দিষ্ট মেশিন লাগবে আমার মনে হয়। সেই মেশিনে লাইন্সেস ঢোকালে এটার স্ট্যাটাস কি, এটার কত পয়েন্ট আছে আবার পয়েন্ট কাটতে হলেও সফটওয়ারের মাধ্যমেই কম্পিউটার ব্যবহার করে কাটতে হবে। এই জিনিসগুলো নিয়ে আমার মনে হয় আরও স্টাডি করার প্রয়োজন আছে। এটা হয়তো বিআরটিএ আরও ভাল বলতে পারবে।’

বিআরটিএ পরিচালক (রোড সেফটি) শেখ মোহাম্মদ মাহবুব-ই-রব্বানী এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমাদের যে ড্রাইভিং লাইন্সেস এটা ইউরোপীয়ান টেকনোলজিতে তৈরি করা এবং আমাদের কম্পিউটারের সিস্টেমে এই জিনিসটা অন্তর্ভুক্ত করা বা সমন্বয় করা খুব একটা জটিল কোন বিষয় না।’