Home অর্থ-বাণিজ্য ‘দেশে প্রবাসীদের বিনিয়োগ সহায়তার জন্য আলাদা কমিটি করা হবে’

‘দেশে প্রবাসীদের বিনিয়োগ সহায়তার জন্য আলাদা কমিটি করা হবে’

5
0
SHARE

প্রবাসীদের দেশে বিনিয়োগ ও ব্যবসা সংক্রান্ত সহায়তা প্রদানে সরকার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করবে। বাংলাদেশে বিনিয়োগ ও ব্যবসা পরিচালনার ক্ষেত্রে প্রবাসীরা যেসব সুযোগ-সুবিধা চান, সেসব বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি প্রবাসীদের বিনিয়োগ সম্প্রসারণে এই কমিটি কাজ করবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি।

ওয়ার্ল্ড এক্সপো, ২০২০ দুবাই উপলক্ষে টিপু মুনশি বর্তমানে সংযুক্ত আরব-আমিরাত সফরে রয়েছেন। সেখানে তিনি এসব কথা বলেন।

টিপু মুনশি বলেন, ‘প্রবাসীরা দেশে বিনিয়োগ ও ব্যবসা পরিচালনার ক্ষেত্রে কোথাও কোন সমস্যা মনে করলে সেগুলো দ্রুত সমাধান করা হবে। বিনিয়োগ সংক্রান্ত তাদের প্রস্তাবগুলো যেন সর্বোচ্চ গুরুত্ব পায়, সে লক্ষ্যে এই কমিটি গঠনের কথা ভাবা হচ্ছে।’

তিনি জানান, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্বে শিল্প মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) এবং বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) সমন্বয়ে এই কমিটি গঠন করা হবে,যার মূল কাজ হবে প্রবাসীদের বিনিয়োগ প্রস্তাবের বিষয়ে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ। পাশাপাশি প্রবাসীদের বিনিয়োগ আরও কিভাবে সহজ করা যায়, সেসব বিষয়ে কাজ করা।

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি গত শুক্রবার দুবাইয়ে ওয়ার্ল্ড এক্সপোতে স্থাপিত বাংলাদেশ প্যাভিলিয়নের উদ্বোধন করেন। প্রথমবারের মত বাংলাদেশ নিজস্ব প্যাভিলিয়নে ওয়ার্ল্ড এক্সপোতে অংশগ্রহণ করেছে। ছয় মাসব্যাপী এই প্রদর্শনী চলবে আগামীবছর ৩১ মার্চ পর্যন্ত। গত বৃহস্পতিবার জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিশে^র বৃহত্তম মেলা ‘ওয়ার্ল্ড এক্সপো,২০২০ দুবাই’-এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়।

বাণিজ্য মন্ত্রী এক্সপোয় আগত প্রবাসী ব্যবাসায়ীদের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি প্রবাসীদের দেশে বিনিয়োগের অনুরোধ জানান। এ ছাড়া তিনি প্রবাসী ব্যবসায়ীদের সংগঠন এনআরবি সিআইপি এসোসিয়েশন আয়োজিত সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন। সেখানে বিশে^র ৩০টি দেশ থেকে প্রবাসী ব্যবসায়ীরা অংশগ্রহণ করে।

প্রবাসী ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে টিপু মুনশি বলেন, বাংলাদেশ এখন বিনিয়োগের জন্য প্রস্তুত হয়ে গেছে। অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা হচ্ছে। আপনারা বিনিয়োগ করলে, বিদেশীরা তখন বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে আরও উৎসাহ পাবে।

তিনি বলেন, ‘আমি সরকারের পক্ষ থেকে আপনাদের চূড়ান্তভাবে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি-বিনিয়োগ করার ক্ষেত্রে কিংবা ব্যবসা পরিচালনায় কোথাও সমস্যা দেখা দিলে সেগুলো নিয়ে আসুন, সমাধানের সর্বোচ্চ চেস্টা করব।’

তিনি প্রবাসীদের যে কোনো একটি সুনির্দিষ্ট প্লাটফর্মের মাধ্যমে বিনিয়োগ কিভাবে আরও সহজ করা যায়, সেসব প্রস্তাব নিয়ে আসার অনুরোধ করেন। মন্ত্রী বলেন, বিচ্ছিন্নভাবে প্রস্তাব নিয়ে আসলে সরকারের পক্ষে কাজ করা কঠিন। বরং একটি সুনিদির্ষ্ট প্লাটফর্মের মাধ্যমে আসলে, আমাদের পক্ষে কাজ করা অনেক সহজ হবে।

টিপু মুনশি বলেন, প্রবাসীরা তাদের জন্য একটি ডেডিকেটেড অর্থনৈতিক অঞ্চল চাই। সরকার অত্যন্ত ইতিবাচকভাবে তাদের এই প্রস্তাব বিবেচনা করবে।

এক্সপো, দুবাইয়ের বিষয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, এই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ নিজস্ব প্যাভেলিয়ন স্থাপন করে এত বড় ইভেন্টে অংশগ্রহণ করল। এখানে উল্লেখযোগ্য রফতানি পণ্য প্রদর্শনীর পাশাপাশি বাংলাদেশের অর্থনীতির শক্তিশালী দিকগুলো তুলে ধরার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ এখন আর পিছিয়ে পড়া দেশ নয়, তার ঈর্ষণীয় সাফল্য রয়েছে। সেগুলো মেলার মাধ্যমে বিশে^র দরবারে তুলে ধরা হবে। মেলায় বিশ্ব উদ্যোক্তারা এক নতুন শক্তিশালী বাংলাদেশকে দেখতে পাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

মেলায় আগত দর্শনার্থীরা দৃষ্টিনন্দন ও অভিজাত ডিজাউনে তৈরি বাংলাদেশ প্যাভিলিয়ন ঘুরে দেখছেন। বাংলাদেশি পণ্যের ব্যাপারে তারা জানার আগ্রহ দেখাচ্ছেন।

এবারের ওয়ার্ল্ড এক্সপোতে ১৯২টি দেশ অংশগ্রহণ করেছে। উল্লেখ্য, মধ্যপ্রাচ্য, আফ্রিকা ও দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলে প্রথমবারের মত এই প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর আগে সর্বশেষ ২০১৫ সালে ইতালির মিলানে ওয়ার্ল্ড এক্সপো অনুষ্ঠিত হয়।
খবর বাসস