Home খেলা আবারও ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক বাবর আজম

আবারও ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক বাবর আজম

5
0
SHARE

ভারতের মাটিতে ওয়ানডে বিশ্বকাপে প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফরম্যান্স করতে পারেনি পাকিস্তান। যে কারণে বিশ্ব আসরের পর তিন ফরম্যাটে নেতৃত্বে থাকা বাবর আজমকে সরিয়ে টি-টুয়েন্টিতে অধিনায়ক করা হয়েছিল শাহিন শাহ আফ্রিদিকে। এবার টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপকে সামনে রেখে আবারও দলের নেতৃত্বে আনা হয়েছে বাবরকেই।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) রোববার এক ভিডিও বার্তায় জানায়, দেশটির সাদা বলের ক্রিকেটে অর্থাৎ ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করবেন বাবর আজম। নির্বাচক কমিটির সুপারিশেই আবারও বাবরকে অধিনায়ক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন মহসিন নাকভি।

এর আগে বিশ্বকাপে ভরাডুবির পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নেতৃত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন বাবর। পরে জাকা আশরাফের তৎকালীন বোর্ড ওয়ানডে ও টেস্টে শান মাসুদ এবং টি-টুয়েন্টির নেতৃত্ব তুলে দেন শাহিন শাহ আফ্রিদিকে।

বাঁহাতি পেসারের অধীনে পাকিস্তান খেলেছে একটি সিরিজ। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে ৪-১ ব্যবধানে হারে আফ্রিদির দল। পিএসএলে আগের দুই মৌসুমে লাহোর কালান্দার্সকে শিরোপা জেতানো আফ্রিদির দল এবার তেমন কিছুই করতে পারেনি। আসরে কেবল এক ম্যাচে জয় পেয়েছে। এমন বাস্তবতায় পিসিবি চেয়ারম্যান মহসিন নকভি আগেই নেতৃত্বে পরিবর্তনের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৫ ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজ খেলবে পাকিস্তান। ১৮ এপ্রিল সিরিজ শুরুর বেশ আগেই নেতৃত্বে রদবদল আনলো পিসিবি। সাদা বলের ক্রিকেটে বাবর নেতৃত্বে ফেরায় এক সিরিজ শেষেই টি-টুয়েন্টিতে অধিনায়কত্ব অধ্যায় শেষ হলো শাহিন শাহ আফ্রিদির। এ ছাড়া ওয়ানডের নেতৃত্ব হারালেন শান মাসুদ।

২০১৯ সালে সাদা বলের ক্রিকেটের নেতৃত্ব পেয়েছিলেন বাবর। এ ছাড়া ২০২১ সালে টেস্টের অধিনায়কত্ব দেয়া হয় ডানহাতি ব্যাটারকে। যদিও তার নেতৃত্বে এখন পর্যন্ত কোনো বিশ্ব শিরোপা জিততে পারেনি পাকিস্তান। তবে র‌্যাঙ্কিংয়ে বেশ দাপট দেখিয়েছে তারা। বাবরের নেতৃত্বে ৪২ ম্যাচে জয়ের বিপরীতে পাকিস্তানের হার ২৩টি।